Deshdeshantor24com: Bangla news portal

ঢাকা রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪

জাপানে সরকারিভাবে চালু হচ্ছে ডেটিং অ্যাপ

জাপানে সরকারিভাবে চালু হচ্ছে ডেটিং অ্যাপ
ছবি সংগৃহিত

জাপানে জন্মহার বাড়াতে সরকারিভাবে ডেটিং অ্যাপ চালু করেছে দেশটির সরকার। চলতি বছর দেশটিতে নিম্ন জন্মহারের কারণে এই ব্যতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহণ করেছে দেশটির প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা।

 জাপানের সরকারি ডেটিং অ্যাপটি ব্যবহারের জন্য নির্দিষ্ট কিছু নিয়মের মধ্য দিয়ে যাওয়া লাগবে। প্রথমত, ব্যবহারকারী অবিবাহিত তার প্রমাণ দিতে হবে। দ্বিতীয়ত, ব্যবহারকারীদের স্বাক্ষর করে জানাতে হবে তাদের বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার ইচ্ছা আছে। তৃতীয়ত, তাদের বার্ষিক আয়ের নথি পেশ করতে হবে। সবশেষ, ডেটিং অ্যাপ ব্যবহারের আগে তাদের সাক্ষৎকার নেয়া হবে।

 দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, কয়েক বছর ধরে জাপানের জনসংখ্যার হার নিম্নমুখী। ১২ কোটির বেশি মানুষের দেশটিতে গত বছর জন্ম নিয়েছে মাত্র ৭ লাখ ২৭ হাজার ২৭৭ শিশু। আর প্রাণ হারিয়েছে ১৫ লাখ ৭০ হাজার নাগরিক, যা তাদের জন্মের তুলনায় দ্বিগুণ।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি বছর জন্মহার আরও কমে গেছে। জনশক্তির অভাবে ক্ষতির মুখে পড়েছে দেশটির অর্থনীতি। এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণ পেতে ভিন্ন একটি পন্থা অবলম্বন করেছে ফুমিও কিশিদা সরকার।

জন্মহারের নিম্নগতি ও বিয়ের সংকট মোকাবিলায় সরকারিভাবে ডেটিং অ্যাপ চালু করতে যাচ্ছে টোকিও। মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে মানুষকে বিবাহমুখী করার বিভিন্ন প্রকল্পের জন্য এরইমধ্যে ২০২৪ সালের বাজেটে ৩০০ মিলিয়ন ইয়েন বরাদ্দ করেছে জাপান সরকার।

কয়েক দশক ধরে ভীষণভাবে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এ ধরনের ডেটিং অ্যাপ। এই অ্যাপগুলোর মাধ্যমে ভালোবাসার মানুষ এবং জীবনসঙ্গী খুঁজে পেয়েছে অনেকেই। তাই এবার দেশের এই সংকট মেটাতে এ ধরনের অ্যাপের সাহায্য নিচ্ছে জাপান সরকার। এ বিষয়ে জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা বলেন, জন্মহার হ্রাসের প্রবণতা তাদের দেশে সবচেয়ে বড় সংকট হয়ে দাঁড়িয়েছে। ২০৭০ সালের মধ্যে জাপানের জনসংখ্যা ৩০ শতাংশ কমে ৮ কোটি ৭০ লাখে নামবে বলে ধারণা সংশ্লিষ্টদের।


এএজি