Deshdeshantor24com: Bangla news portal

ঢাকা শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪

চীনে দু’পায়ে দাঁড়ানো ভাল্লুক নিয়ে মানুষের কৌতুহল !

চীনে দু’পায়ে দাঁড়ানো ভাল্লুক নিয়ে মানুষের কৌতুহল !
ছবি: সংগৃহীত

ভল্লুক হিংস্র প্রাণী। সুযোগ পেলেই মানুষের ওপর হামলে পড়ে। প্রাণীটা নিয়ে মানুষের এটাই সাধারণ ধারণা। কিন্তু ভল্লুক হিংস্র প্রকৃতির বলে মানুষের বদ্ধমূল যে ধারণা রয়েছে, চীনের একটা ভল্লুক তা বদলে দিয়েছে। 

ঘটনাটা ঘটেছে পূর্ব চীনের ঝেজিয়াং প্রদেশের হাংঝৌ চিড়িয়াখানায় । সেখানে একটি ভল্লুকের আচরণ ছিল অনেকটা মানুষের মতো। ‘এনজেলা’ নামের এই ভাল্লুকের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে ছড়িয়ে পরার পর থেকে চিড়িয়াখানাটিতে প্রায় ৩০ শতাংশ দর্শনার্থী বেড়েছে একদিনে। দেশটির এক সংবাদ মাধ্যমের বরাতে জানা যায়, চিড়িয়াখানাটিতে একদিনে প্রায় ২০ হাজারের অধিক দর্শনার্থী শুধু এই ‘এনজেলা’কে দেখতে ভিড় জমায়।

এদিকে শেষ সপ্তাহে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যায়, ভাল্লুকটি তার খাঁচার বা ঘেরে একদম কিনারায় সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে আছে। তার কোমড়ের কাছে চামড়া এমন ভাবে ভাঁজ হয়ে পড়েছে, যা দেখে অধিকাংশই ধারণা করছে ভাল্লুকটি আসলে নকল পোশাকরত চিড়িয়াখানারই কোনো কর্মী হবেন। 

অস্বাভাবিকভাবে দাড়িঁয়ে থাকা ভাল্লুকটি দেখতে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দর্শনার্থীরা ভিড় করছেন। চীনের হাংঝৌ টেলিভিশনের এক সাক্ষাৎকারে একজন দর্শনার্থী জানান, আমি ভিডিওটি দেখার পর রাতের দ্রুতগতির ট্রেনেই এখানে চলে এসেছি। সত্যিকার অর্থে ভাল্লুকটি দেখতে আমার সুন্দরই লেগেছে। সত্যিকার অর্থে চোখে দেখতে এটি দেখতে কেমন লাগে তা দেখতেই এখানে আসা।

দর্শনার্থীদের মধ্যে কেউ কেউ আবার বলছে, যদ্যি সত্যিকারেই এটি নকল হয়ে থাকে তবে এতো চমৎকার অভিনয়ের জন্য এর অস্কার পাওয়া উচিত।
তবে সকল অভিযোগকে উড়িয়ে দিয়ে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ বলছে, একটি সরকারি চিড়িয়াখানায় একখনোই ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে না।  

এক স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে দেয়া সাক্ষাৎকারে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ জানান, ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় একজন মানুষ কখনোই ভাল্লুকের পোশাক পরে কয়েক মিনিটের বেশি টিকে থাকা সম্ভব নয়।


এমআইপি